আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর

আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর কিছু – Bangla SMS

Posted by

আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর

1

“অসম্ভব” “অসম্ভব” কথাটার আসল মানে এই
যে তুমি এখন প্রকৃত সমাধান খুঁজে পাও নি!


2

“আমি করি কারণ আমি পারি
আমি পারি কারণ আমি পারতে চাই
আমি পারতে চাই কারণ তুমি বলেছিলে
“আমি এটা করতে পারবো না”


3

আমি তো এটা চাইলেই করতে পারব”
-এটা ভেবে কখনও আনন্দ পেও না
.ওতে কাজটাই কখনও করা হবে না
মনের আত্মবিশ্বাস নিয়ে কাজ শুরু করে দাও


4

অজ্ঞ ব্যাক্তি নিজের ভাল নিজেই বোঝে না,
তাছাড়া অন্যের উপদেশ তাচ্ছিল্যের সাথে প্রত্যাখান করে।”
– হযরত আলী (রা)


5

অজ্ঞ ব্যাক্তি নিজের ভাল নিজেই বোঝে না,
তাছাড়া অন্যের উপদেশ তাচ্ছিল্যের সাথে প্রত্যাখান করে।”
– হযরত আলী (রা)


6

জীবনের সবচেয়ে বড় জয় হলো এমনকিছু করে দেখানো
যা সবাই ভেবেছিল তুমি কখনোই করতে পারবেন না

আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর


7

“ডিগ্রী না থাকাটা কিন্তু একটা ভালো ব্যাপার…
কারণ যে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়েছে বা ডাক্তারির ডিগ্রী যার কাছে আছে,
সে শুধুমাত্র একটাই কাজ করতে পারে..
কিন্তু যার কাছে কোনো ডিগ্রী নেই সে যা ইচ্ছা করতে পারে চাইলেই…
-শিব খের


8

\”তোমার যা নেই তার পেছনে ছুটো।যা আছে তা নষ্ট করো না
।মনে রেখো আজকে তোমার যা আছে।গতকাল তুমি সেটার পেছনে ছুটে ছিলে
— এপিকিউরাস


9

“নিজেকে কখনও ছোট করে দেখো না,
তাহলে তোমার নিজের আত্মাই মরে যাবে।
আত্মা মরে গেলে মানুষ স্বপ্ন দেখতে ভুলে যায়।
আর স্বপ্ন ছাড়া মানুষ কখনও বেঁচে থাকতে পারে না


10

ভুল ভ্রান্তি দিয়েই মানুষের জীবন।
সেই ভুলকে প্রাধান্য দিয়ে,
বাকি জীবনে অশান্তি ডেকে আনবার কোন মানে হয় না


11

রাস্তায় ঘেউ ঘেউ করা সব কুকুরকে তুমি
যদি ঢিল মারতে যাও তাহলে তুমি
তোমার গন্তব্যেই পৌঁছাতে পারবে না


12

হীরে কিন্তু আসলে কালো কয়লার একটা স্তুপের মধ্যে থাকা
একটা কয়লার টুকরো যেটা খুব চাপের মধ্যে থেকে একটা হীরের রূপ নিয়েছে…


13

সমস্যায় পড়ে যদি ভেঙে পড়ো,
সমস্যা তোমার উপর চেপে বসবে…
মনকে বোঝাও,
সত্যি বলতে কি,
আমার বয়ে গেছে


14

সমস্যা যতই কঠিন হোক না কেন,
সাহসের সাথে সমস্যাগুলোর মুখোমুখি হও
কারণ এগুলোই তোমাকে দেবে তোমার জীবনের সবচেয়ে বড় শিক্ষা


15

স্বপ্ন সবারই থাকে,কিন্তু সেগুলোকে সত্যি করে তলার জন্যে
যে পরিশ্রম প্রয়োজন সেটা করার মতন মানসিকতা সবার থাকে না..
.স্বপ্ন সত্যি তাদেরই হয় যারা সেটা সত্যি করার চেষ্টাটুকু অন্তত করে


16

স্বামী বিবেকানন্দ একজন ভারতীয় হয়েও মাত্র
পাঁচ মিনিটের সময় নিয়ে স্টেজে উঠে পুরো আধ ঘন্টা বক্তৃতা দেন শিকাগোর মতন জায়গায়…
কারণ তাঁর মধ্যে সেই আত্মবিশ্বাস,জ্ঞান এবং ব্যক্তিত্ব ছিল…তিনিও বাঙালি ছিলেন এবং আমরাও বাঙালি…
তাই “বাঙালি মানেই কুঁড়ে এবং অকর্মন্য”-
এই চিন্তাভাবনা যারা করে তাদের মুখ বন্ধ করার
এক মাত্র উপায় হলো স্বামী বিবেকানান্দর মতন হওয়ার চেষ্টাটুকু করা…


17

সবাই বলে তুমি একবারই বাঁচার সুযোগ পাও,
আমি মানি না…
আমার মতে বাঁচো তো তুমি প্রতিদিনই,
কিন্তু মরতে পারবে একবারই


18

সব সমস্যায়ই তুমি নিজেকে একা পাবে.
..কিন্তু তোমার সাফল্যের পর পুরো পৃথিবী তোমার সঙ্গে থাকবে.
..যখন যখন পৃথিবী কারো উপরে হেসেছে..
.তখন তখন সেই ব্যক্তি ইতিহাস রচনা করেছে


19

সব মহান মানুষেরা তাদের যাত্রা শুরু করেছিলেন
একটা ছোট্ট \”আইডিয়া\” দিয়ে..
সেটা নিয়ে কাজ করতে করতে তারা সাফল্য পেয়েছেন..
তুমিও তেমনিভাবে একটা ছোট্ট লক্ষ্য স্থির করে
যাত্রা শুরু করো.
..সেটা পাওয়া হয়ে গেলে আরও একটা ছোট লক্ষ্য স্থির করো..
এভাবে এগিয়ে যাও ধীরে ধীরে


20

সব কিছু মনে রাখতে নেই । কিছু কিছু জিনিস ভুলে যেতে হয় ।
যেমন কারো অবেহেলা, বা ব্যর্থ ভালোবাসা…
নাহলে এগুলো জীবনে চলার পথে তোমাকে বারবার হোঁচট খেতে বাধ্য করবে..


21

সুন্দর হওয়া মানে একটা
অসাধারণ মুখমন্ডলের উপস্থিতি বোঝায় না..
সৌন্দর্য্য মানে
একটা অসাধারণ মন.
একটা অসাধারণ হৃদয়
আর একটা অসাধারণ আত্মা…
যার কাছে এই তিন আছে সেই
প্রকৃত সুন্দর…
হয়ত বর্তমানে তার দাম সে পাচ্ছে না,
কিন্তু একটা এমন দিন নিশ্চই আসবে যেদিন
সে তার সৌন্দর্য্যের দাম পাবেই!


22

সেই সমস্ত কারণগুলো ভুলে যাও
যেগুলো তোমার সফল হওয়ার পথে বাঁধা হয়ে দাঁড়াবে..
বরং সেগুলো মনে রাখো যেগুলো
তোমাকে সফল হতে সাহায্য করবে


23

চলতে চলতে বাধা সবাই পায়…
তুমিও পাবে…
হয়ত পরেও যাবে..
কিন্তু কত তাড়াতাড়ি
তুমি আবার উঠে দাঁড়াচ্ছ তার উপর নির্ভর করছে
যে তুমি বাকিদের থেকে কতটা আলাদা!


24

চাঁদকে উদ্দেশ্য করে তীর ছুঁড়ো,
যদি তীর চাঁদের গায়ে নাও লাগে তবে নিশ্চিত
তা তারা গুলোর বুক তো ভেদ করবেই
বড় কিছু হবার চেষ্টা করো,
একটা না একটা কিছু হতে পারবেই।


25

গাছের উপর বসে থাকা একটা পাখি কখনোই ডাল ভেঙ্গে পড়ার ভয় পায়না !!
কারণ, তার বিশ্বাসটা তখন ঐ গাছের উপর থাকে না !!
তার বিশ্বাস থাকে তখন নিজের ডানার উপর !!
নিজেকে কখনোই সাধারন ভাববেন না….. কারণ, স্রষ্টা কাউকে সাধারনভাবে তৈরী করেননি…
. তাই নিজের দক্ষতার উপর ভরসা রেখে নিজেকে গড়ে তুলুন… সবসময়

আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর


26

কষ্ট মানুষকে পরিবর্তন করে,
কষ্ট মানুষকে শক্তিশালীও করে।
প্রতিটি কষ্টকর অভিজ্ঞতাই
আমাদের জন্যে নতুন শিক্ষা


27

কষ্ট মানুষকে পরিবর্তন করে,
কষ্ট মানুষকে শক্তিশালীও করে।
প্রতিটি কষ্টকর অভিজ্ঞতাই
আমাদের জন্যে নতুন শিক্ষা

আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর


28

কাউকে কাছে টানার আগে,
প্রশ্রয় দেবার আগে বারবার ভাবুন দুজন দুজনার যোগ্য কিনা।
কাছে টেনে অযোগ্যতা কিংবা
অক্ষমতার কথা জানিয়ে নিজেও
অপমানিত হবেন না কিংবা কাউকে অপমান করার ও অধিকার আপনার নেই।।


29

কাউকে যদি ভালবাস, ভালবেস
চিরদিন। আর যদি না বাসো,
বেসনা কোন দিন। অবুঝ মন
নিয়ে খেলা খেলনা, কোন
নিষ্পাপ
হৃদয়ে ব্যাথা দিয়োনা


30

কখনো ভেবো না যে অন্য কেউ তোমার চেয়ে বেশী আশীর্বাদের অধিকারী….
আসলে আমরা সবাই-ই ভিন্ন ভিন্ন ভাবে ঈশ্বরের আশীর্বাদপ্রাপ্ত


31

কখনো পড়ে না যাওয়াটা প্রশংসার যোগ্য না,
কিন্তু পড়ে গিয়ে কত তাড়াতাড়ি তুমি নিজেকে সামলে নিচ্ছ,
সেটা প্রশংসার যোগ্য…


32

কখনো তাদের নিয়ে বেশি চিন্তা কোরো না,
যারা তোমার পেছনে তোমার নিন্দা করে,
কারণ তারা তোমার পেছনে আছে কোনো না কোনো কারণে


33

কখনো কখনো জীবনে এগিয়ে চলতে হলে ঘুরে দাঁড়াতে হয়,
এর মানে এই নয় যে তোমার সময়টা নষ্ট হল,
কারণ,এখন তুমি এখন এমন অনেক কিছু জানো,
যা আগে কখনো জানতে না


34

কখনো কখনো কাউকে ভুলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়াটা কঠিন.,
কিন্তু…
একবার যদি আপনি সামনে এগিয়ে যেতে পারেন…
তবে পেছন ফিরে দেখবেন আপনার জীবনের শ্রেষ্ঠ
সিদ্ধান্তটাই আপনি নিয়েছিলেন


35

কখনো কখনো আমাদের মধ্যে সেই সবচেয়ে বেশী শক্তিশালী হয় যে সবার সামনে ভীষণ হাসে,
দরজা বন্ধ করে কাঁদতে ভালবাসে…
আর নিজের সাথে নিজে যুদ্ধ করে যায় সবার অজান্তে.


36

কখনো অন্যের সঙ্গে নিজের তুলনা করবে না।
যখনই আপনি তুলনা করবেন তখন আসলে আপনি নিজেই নিজেকে ছোট করবেন।।।।
~~ বিল গেটস
প্রতিষ্ঠাতা, মাইক্রোসফট


37

এমন কাউকে ভালবেস না যার কাছে প্রয়োজন ব্যতীত তোমার আর কোন মূল্য নেই ।
তাকেই ভালবেস
যে প্রয়োজনে অপ্রয়োজনে তোমার প্রয়োজন অনুভব করবে


38

এমন একদিন নিশ্চই আসবে যেদিন এমন কেউ তোমার জীবনে আসবে
যে তোমার অতীত নিয়ে মাথা ঘামাবে না কারণ
সে তোমার সাথে বাকি ভবিষ্যতটা মন দিয়ে কাটাতে চাইবে…


39

একবারে কঠিন কিছু করা কঠিন কাজ…
তার বদলে তুমি যদি ছোট ছোট জিনিসগুলো ভালোবেসে করো
,তাহলেই একদিন অনেক বড় কিছু করার
পথে তুমি বাকিদের থেকে অনেকটা এগিয়ে থাকবে.


40

একদম নিখুঁত মানুষ খুঁজতে যেও না ,বিধাতা মানুষের ভিতর কিছু কিছু খুত মিশিয়ে দিয়েছে;
বেশি নিখুঁত মানুষ খুঁজতে গেলে, তুমি ভালোবাসার কোনো মানুষই পাবে না..!!


41

একটি হাঁস সারাদিন পানিতে থাকেলেও, তার গায়ে পানি লেগে থাকে না, ঝরে পড়ে।
তেমনি মা তাঁর সন্তানকে যতো ই খারাপ কথা বলে ফেলুন না কেনো,
তা সন্তানের গায়ে লাগে না।


42

একটি ফুলকে বেশি কাছ থেকে দেখতে গেলে যেমন তার পরাগ আপনার ক্ষতি করতে পারে;
তেমনি জীবন নামক ফুলটাকে বেশি নাড়াচাড়া করতে গেলে তা মলিন হয়ে যেতে পারে।


43

একটামাত্র সময়েই পেছনে ফিরে তাকাবে,
যখন তোমার এটা জানতে ইচ্ছা করবে
যে তুমি আসলে কতটা দূর অবধি পৌঁছেছ!


44

পৃথিবীতে প্রিয় মানুষ গুলোকে ছাড়া
বেঁচে থাকাটা কষ্টকর কিন্তু অসম্ভব কিছু নয়।
কারো জন্য কারো জীবন থেমে থাকে না,
জীবন তার মতই প্রবাহিত হবে ।


45

পৃথিবীতে দুজন মানুষকে খুব
বেশি ভালোবাসা উচিত।
একজন হলো – যিনি তোমাকে জন্ম দিয়েছেন
আর একজন হলো –
যাকে পাওয়ার জন্য তোমার জন্ম হয়েছে…

আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর


46

পৃথিবীতে কেউ কষ্ট ছাড়া থাকে না..
প্রত্যেকের জীবনে কষ্ট আসে…
কষ্টের জন্যে যদি সবাই বাঁচার আশা ছেড়ে দিত,
তাহলে পৃথিবীটা খুব তাড়াতাড়িই প্রাণহীন হয়ে পড়ত!


47

আজ তোমার প্রতি আমার আচরণের কারণ আমার প্রতি তোমার ব্যবহার…
তাই আমার আচরণ তোমার ভালো না লাগলে,
নিজেকে দোষ দাও.

48

পাখি কখনো ডাল ভেঙ্গে পড়ে যাওয়ার ভয় করেনা,
কারন তার বিশ্বাস ডালের উপর নয়
,ডানার উপর।তাই জীবন চলার পথে নিজের উপর বিশ্বাস রাখো
, অন্য কারো উপরে নয়।


49

পাখি কখনো ডাল ভেঙ্গে পড়ে যাওয়ার ভয় করেনা,
কারন তার বিশ্বাস ডালের উপর নয়,ডানার উপর।তাই জীবন চলার
পথে নিজের উপর বিশ্বাস রাখো, অন্য কারো উপরে নয়।

আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর


50

নিজেই নিজেকে তৈরি করো, অন্যের জন্য অপেক্ষা কোরো না,
অন্যের জন্য অপেক্ষা করা মানে নিজেকে পিছনের দিকে ঠেলে দেওয়া।
যখন তোমার কাছে সফলতা অর্জনের আলোকময় আগ্রহ থাকবে
তখন কেউ তোমাকে থামাতে পারবে না।
কি ঘটেছে এটা তোমার দেখার বিষয় নয়,
বরং ঘটার পর তুমি কী করেছ,
সেটাই দেখার বিষয়।

আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর


 

Our More Quotes:

আমাদের ভিডিও দেখুনঃ Sharthohin Valobasha – স্বার্থহীন ভালোবাসা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *