কাগজের নৌকা – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

ছুটি হলে রোজ ভাসাই জলে কাগজ-নৌকাখানি। লিখে রাখি তাতে আপনার নাম, লিখি আমাদের বাড়ি কোন গ্রাম বড়ো বড়ো ক’রে মোটা অক্ষরে যতনে লাইন টানি। যদি সে নৌকা আর-কোনো দেশে আর-কারো হাতে পড়ে গিয়ে শেষে আমার লিখন পড়িয়া তখন বুঝিবে সে অনুমানি কার কাছ হতে ভেসে […]

এসো হে বৈশাখ এসো এসো – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

এসো, এসো, এসো হে বৈশাখ তাপসনিশ্বাসবায়ে মুমূর্ষুরে দাও উড়ায়ে, বৎসরের আবর্জনা দূর হয়ে যাক যাক পুরাতন স্মৃতি, যাক ভুলে যাওয়া গীতি, অশ্রুবাষ্প সুদূরে মিলাক। মুছে যাক গ্লানি, ঘুচে যাক জরা, অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা রসের আবেশরাশি শুষ্ক করি দাও আসি, আনো আনো আনো তব প্রলয়ের […]

তালগাছ – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (সেই ক্ল্যাসিক কবিতা)

তালগাছ এক পায়ে দাঁড়িয়ে সব গাছ ছাড়িয়ে উঁকি মারে আকাশে। মনে সাধ, কালো মেঘ ফুঁড়ে যায়, একেবারে উড়ে যায়; কোথা পাবে পাখা সে? তাই তো সে ঠিক তার মাথাতে গোল গোল পাতাতে ইচ্ছাটি মেলে তার, – মনে মনে ভাবে, বুঝি ডানা এই, উড়ে যেতে মানা […]

কৃষ্ণকলি – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কালো তারে বলে গাঁয়ের লোক। মেঘলাদিনে দেখেছিলেম মাঠে কালো মেয়ের কালো হরিণ-চোখ। ঘোমটা মাথায় ছিলনা তার মোটে, মুক্তবেণী পিঠের ‘পরে লোটে। কালো? তা সে যতই কালো হোক, দেখেছি তার কালো হরিণ-চোখ। ঘন মেঘে আঁধার হল দেখে ডাকতেছিল শ্যামল দুটি গাই, শ্যামা মেয়ে ব্যস্ত ব্যাকুল পদে […]

বীরপুরুষ – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ( সকল মায়ের জন্য রইল শুভেচ্ছা এবং কবিগুরুর প্রতি শ্রদ্ধা )

মনে করো, যেন বিদেশ ঘুরে মাকে নিয়ে যাচ্ছি অনেক দূরে। তুমি যাচ্ছ পালকিতে, মা, চ’ড়ে দরজা দুটো একটুকু ফাঁক ক’রে, আমি যাচ্ছি রাঙা ঘোড়ার ‘পরে টগবগিয়ে তোমার পাশে পাশে। রাস্তা থেকে ঘোড়ার খুরে খুরে রাঙা ধূলোয় মেঘ উড়িয়ে আসে। সন্ধ্যে হল, সূর্য নামে পাটে, এলেম […]

দান – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কাঁকন-জোড়া এনে দিলেম যবে, ভেবেছিলেম, হয়তো খুশি হবে। তুলে তুমি নিলে হাতের ‘পরে, ঘুরিয়ে তুমি দেখলে ক্ষণেক-তরে, পরেছিলে হয়তো গিয়ে ঘরে – হয়তো বা তা রেখেছিলে খুলে। এলে যেদিন বিদায় নেবার রাতে কাঁকনদুটি দেখি নাই তো হাতে, হয়তো এলে ভুলে।। দেয় যে জনা কী দশা […]

জুতা-আবিষ্কার – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

কহিলা হবু, ‘শুন গো গোবুরায়, কালিকে আমি ভেবেছি সারা রাত্র— মলিন ধূলা লাগিবে কেন পায় ধরণী‐মাঝে চরণ‐ফেলা মাত্র! তোমরা শুধু বেতন লহ বাঁটি, রাজার কাজে কিছুই নাহি দৃষ্টি। আমার মাটি লাগায় মোরে মাটি, রাজ্যে মোর একি এ অনাসৃষ্টি! শীঘ্র এর করিবে প্রতিকার, নহিলে কারো রক্ষা […]

নির্ঝরের স্বপ্নভঙ্গ – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

আজি এ প্রভাতে রবির কর কেমনে পশিল প্রাণের পর, কেমনে পশিল গুহার আঁধারে প্রভাতপাখির গান! না জানি কেন রে এত দিন পরে জাগিয়া উঠিল প্রাণ। জাগিয়া উঠেছে প্রাণ, ওরে উথলি উঠেছে বারি, ওরে প্রাণের বাসনা প্রাণের আবেগ রুধিয়া রাখিতে নারি। থর থর করি কাঁপিছে ভূধর, […]

নিরুদ্দেশ যাত্রা – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

আর কত দূরে নিয়ে যাবে মোরে হে সুন্দরী ? বলো কোন্‌ পার ভিড়িবে তোমার সোনার তরী । যখনি শুধাই , ওগো বিদেশিনী , তুমি হাস শুধু , মধুরহাসিনী — বুঝিতে না পারি , কী জানি কী আছে তোমার মনে । নীরবে দেখাও অঙ্গুলি তুলি অকূল […]

হঠাৎ দেখা – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

রেলগাড়ির কামরায় হঠাৎ দেখা , ভাবিনি সম্ভব হবে কোনদিন ।। আগে ওকে বারবার দেখেছি লাল রঙের শাড়িতে – দালিম-ফুলের মত রাঙা; আজ পরেছে কালো রেশমের কাপড়, আঁচল তুলেছে মাথায় দোলন-চাঁপার মত চিকন-গৌর মুখখানি ঘিরে । মনে হল, কাল রঙের একটা গভীর দূরত্ব ঘনিয়ে নিয়েছে নিজের […]

অটোগ্রাফ – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

খুলে আজ বলি , ওগো নব্য , নও তুমি পুরোপুরি সভ্য । জগৎটা যত লও চিনে ভদ্র হতেছ দিনে দিনে । বলি তবু সত্য এ কথা — বারো-আনা অভদ্রতা কাপড়ে-চোপড়ে ঢাক ‘ তারে , ধরা তবু পড়ে বারে বারে , কথা যেই বার হয় মুখে […]