Doctor Bou – Part( 1 ) | ডাক্তার বউ – পার্ট( ১ )

Doctor Bou
image_pdf

অনেক ক্ষন হলো ডাক্তারের রুমের সামনে দারিয়ে আছি ! অনেক বড় লাইন! আমি মাঝামাঝি আছি |
সরকারি হাসপাতাল গুলোতে এই একটা সমস্যা সকাল না হতেই রোগীদের লাইন পরে যায় ! তার মধ্যে সব থেকে বিরক্তির হচ্ছে!,
সেটা হলো ডাক্তার কিংবা নার্সদের স্টার্ফদের জ্বালা !
মানুষ ২ ঘন্টা দাড়িয়ে থেকে লাইন পাইনা আর উনারা সাহেব দের মতো এসে সবার আগে দেখিয়ে চলে যায়!
এখন তেমন একটা গরম নেই কিন্তু অনেক মানুষের ভিরে গরম লাগছে ! টি-শার্ট ভিজে একাকার !
প্রায় ১ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকার পর অবশেষে আমার সিরিয়াল আসলো| রুমের ভিতর ঢুকার আগের বড় ধরনের ক্রাশ খাইলাম !
এতো সুন্দর পরী এখানে কী করছে মনে হয় ভুল করে এখানে নেমে এসেছে | ডাক্তারের পোশাকে তাকে ভয়ঙ্কর সুন্দর লাগছে |
:-আপনি ওখানে ওই ভাবে দাঁড়িয়ে আছেন কেন বসুন! ডাক্তারের কথাতে বাস্তবে ফিরলাম ! আমি ডাক্তারের সামনে চিয়ারটাতে বসলাম |
:- আপনার সমস্যা বলুন ? (তুলি রহমান) টেবিলের উপর একটা কাঠে লিখা আছে অবস্য এটাকে কাঠ বলে কীনা আমার জানা নেই |
:-আপনার সমস্যা বলুন? (তুলি) | মানে সমস্যা ম্যাডাম!
:-কী? এটা কী বল্লাম আমি? মুখ ফসকে বলে ফেল্লাম |
:-না মানে আজ কয়একদিন জাবত চোখে প্রচন্দ ব্যাথা হচ্ছে! ঠিক মতো ঘুমাতে পারিনা |
:- এর আগে অন্য কোন ডাক্তার দেখাইছেন?
(তুলি) :-এখানে এতো সুন্দর একটা পরী থাকতে অন্যখানে কেন যাবো?
:- আপবি এসব কী বলতাছেন? দেখুন এটা হাসপাতাল| একটু ভেবে চিন্তায় কথা বলুন! আপনাকে দেখে ভদ্র লোকয় মনে হয়!
ভদ্রতা বাজায় রাখুন|(তুলি) একসাথে এত্তোগুলা কথা বল্লো :- সরি | অনেক ক্ষন পরিক্ষা নিরিক্ষা করার পর ঔষধ লিখে দিল |
:-আপনার নাম্বারটা দেন, যদি বেশি সমস্যা হয় তাহলে আপনাকে যানাবো |

(আমি)
:-প্রেসক্রিপসনের উপরে লিখা আছে দেখুন! পর কোন সমস্যা হলে সন্ধা ৭টার পর ফোন দিবেন তার আগে আমি বিজি থাকি!(তুলি)
:- ওকে! আমি প্রেসক্রিপশন হাতে নিয়ে বের হয়ে পরলাম | ঘড়ির দিকে তাকিয়ে দেখি মাত্র ১২ টা বাজে! অফিস থেকে ছুটি নিয়েছি ৩ঘন্টা এখনো ১ঘন্টা হাতে সময় আছে | বাইরে থেকে ঔষধ গুলো কিনে নিয়ে ব্যাগে রাখলাম |

আমি শাকিল একটি সফটাওয়ার ফার্মে ৩ মাস থেকে কাজ করি! আজ কয়একদিন হলো চোখে কী যেন হয়েছে অনেক ব্যাথা করে তাই ডাক্তার দেখাতে এসেছিলাম | কিন্তু ডাক্তার দেখাতে এসে একটা পরীর সাথে দেখা হবে কখনো কল্পনা করি নাই !
না এই‌ মেয়েকে হাতছাড়া করা যাবে না! খোজ খবর নিতে হবে ! আমার একটা ফ্রেন্ড আছে ওই আবার এলাকার সব সুন্দরী মেয়েদের খোজ খবর রাখে আমরা ওকে নাম দিয়েছি মাইয়া খোর! একটা ফোন দিলাম ওকে ! একবার রিং হতেই ফোন রিচিভ করলো !
:-কিরে ফহিন্নি এই সময়ে আবার ফোন দিলি?
(শিমুল) :-দুস্ত একটা বিপদে আছি তাই তোকে ফোন দিলাম !
(আমি) :-আমি যানি তোদের কোন প্রয়োজন ছাড়া আমাকে মনে করিস না ! তো বল কী দরকার?
(শিমুল) :-আমাদের এখানে চোক্ষ হাসপাতালে যে ডাক্তার বসে উনার সম্পকে কিছু জানিস?
(আমি) :-মামা ওই মাইয়ার দিকে তাকাবানা ওটা তোমাগো ভাবি হবে |
(শিমুল) :-দোস্ত দেনা এইটা আমাকে তোর তো অনেক গ্রালফ্রেন্ড! এইটা আমাকে দিয়ে দে! তুই যা খেতে চাস তাই খাওয়াবো!
(আমি) :-আচ্ছা যা দিয়ে দিলাম তুই বন্ধু মানুষ এতো করে যখন বলছস তার জন্য দিয়ে দিলাম! কিন্তু মামা পার্টি দিতে হবে |
(শিমুল) :-আচ্ছা! আগে বল এই মেয়ে কারো সাথে রিলেশন করে কিনা?
(আমি) :-আমার জানা মতে কারো সাথে রিলেশন করে না! তবে আমার জানা মতে এই‌ মেয়ের সাথে একটা ছেলের বিয়ের কথা চলছে! এই মেয়ের বাসা জামালপুরে! এখানে চাকরী হওয়ায় পরিবার সহ থাকে!
(শিমুল) :-এইটা হতে পারে না ! আমি ছারা ওকে কেউ পাবে না! এখন রাখি অফিসে যেতে হবে !
(আমি) :-আচ্ছা | ভাবছি কী করবো তুলিকে প্রথম দেখায় ভালো লাগছে! জীবনে কখনো প্রেম করিনি! করিনি বললে ভুল হবে আম্মু করতে দেই নাই ! সবসময় আমাকে চোখে চোখে রাখতো |

একবার এক মেয়ের সাথে আমাকে রাস্তায় কথা বলতে দেখেছিলো তাই আমাকে তিনবেলা না খাওয়ায়ে রাখছিলো ! এর পর থেকে প্রেম ভালোবাসা আর সাহস হয় নাই ! বিকেল ৪টায় অফিস থেকে বাসায় ফিরে সবার আগে আব্বুর কাছে গেলাম !
আব্বু আমার ফ্রেন্ড এর মতো ! আব্বু তার রুমে বসে থেকথ টিভি দেখছে |
:-আব্বু তোমার সাথে কিছু কথা আছে (আমি) |
:-বল (আব্বু) ! আসলে তোমরা তো কয়েকদিন থেকে মেয়ে দেখতাছো আমার বিয়ের জন্য তাইনা
(আমি) ! :-হ্যা কিন্তু তুই তো আর রাজি হস না !
(আব্বু) :-না মানে বলছিলাম কী আমি একজনকে পছন্দ করি!
:-বলিস কী? কবে থেকে আমাকে তো আগে বলিস নাই?
:-বলার সময় পেলেই তো বলবো ! আজয় প্রথম মেয়েটাকে দেখলাম (আমি)!
:-বাসা কোথায়? বাবার নাম কী?
:- আমাদের এখানে হাসপাতাল আছে না সেখানকার ডাক্তার!
:-আব্বু তোমিও না প্রথম দেখায় কেউ কোন দিন ভালোবাসে নাকি! তোমি ওর বাবার সাথে কথা বলো!
:-আচ্ছা বলবোনি |
:-বাপ ছেলের এতো কিসের গল্প হচ্ছে?
(আম্মু) :-তোমার ছেলে প্রেমে পরেছে!
(আব্বু) :-কবে কখন? তারাতারি বলো এবার বিয়েটা দিতেই হবে ! সেই কবে থেকে শখ বৌমার মুখ দেখবো, নাতি নাতনির মুখ দেখবো!
(আম্ম) :-আমি গেলাম ! তোমরা কথা বলো (আমি) | রুমে এসে তোলির নাম্বারে ফেসবুকে সার্চ দিলাম কিন্তু আসলো না! এই নাম্বারে কোন আইডি খোলা নাই |

To be contune ……….

Doctor Bou | ডাক্তার বউ

Please Rate This Post
[Total: 7 Average: 2.3]

You may also like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *